ফ্রিডম বাংলা নিউজ

রবিবার, নভেম্বর ২৭, ২০২২ |

EN

নাগরিক অধিকার পেতে তথ্য অধিকার আইন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে- জেলা প্রশাসক

জেলা প্রতিনিধি | আপডেট: বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৪, ২০২২

নাগরিক অধিকার পেতে তথ্য অধিকার আইন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে- জেলা প্রশাসক
ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মোঃ জোহর আলী বলেছেন, ‘নাগরিকদের সকল অধিকার সম্পর্কে জানা ও অধিকারগুলো সঠিকভাবে পেতে তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। একমাত্র তথ্য অধিকার আইনটি দেশের জনগণ সরাসরি প্রয়োগ করতে পারে। কিন্তু এখনও দেশের বেশিরভাগ মানুষ তথ্য পাওয়ার অধিকার এবং এ সম্পর্কিত তথ্য অধিকার আইন ও এর প্রয়োগ সম্পর্কে সচেতন নয়। এই আইনটি জনগণ যত বেশি প্রয়োগ করতে সক্ষম হবে দুর্নীতির মাত্রাও তেমনিভাবে কমে যাবে। টিআইবি’র সনাক যেভাবে এই আইনটি বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখছে তা সত্যিই প্রশংসনীয়।’ বৃহঃবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে ঝালকাঠি নার্সিং কলেজে আয়োজিত তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন, কুইজ প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক একথা বলেন।

ঝালকাঠি নার্সিং কলেজের আয়োজনে এবং টিআইবি’র সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) ও ইয়ুথ এনগেজমেন্ট এন্ড সাপোর্ট (ইয়েস) গ্রুপের সহযোগিতায় ওরিয়েন্টেশনে ঝালকাঠি নার্সিং কলেজের প্রশিক্ষনার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ-টিআইবি’র এরিয়া কোঅর্ডিনেটর মিজানুর রহমানের সঞ্চালনায় ওরিয়েন্টেশনের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), ঝালকাঠির সভাপতি ড. কামরুন্নেছা আজাদ। এছাড়া বক্তব্য রাখেন ঝালকাঠি নার্সিং কলেজের অধ্যক্ষ গীতা রানী সমাদ্দার, সনাক সদস্য মোঃ নজরুল ইসলাম তালুকদার, বীর মুক্তিযোদ্ধা সত্যবান সেন গুপ্ত প্রমুখ।

ওরিয়েন্টেশনে পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ এর উপর বিস্তারিত বিষয় তুলে ধরা হয়। ওরিয়েন্টেশনে অংশগ্রহণকারী ৬৫ জন প্রশিক্ষনার্থী হাতে-কলমে তথ্য প্রাপ্তির আবেদন ফরম পূরন করা শিখেন এবং তারা টিআইবির ইয়েস গ্রুপের সহযোগিতায় বিভিন্ন দপ্তরে তথ্য চেয়ে আবেদন করেন। এছাড়া প্রশিক্ষনার্থীরা তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ এর উপর কুইজ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন। প্রতিযোগিতায় ১ম, ২য় ও ৩য় স্থান অর্জনকারী তিনজনকে ক্রেস্ট ও বই উপহার দেয়া হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ও অন্যান্য অতিথিবৃন্দ বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। পাশাপাশি প্রশিক্ষনার্থীদেরকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করতে দুর্নীতিবিরোধী শপথ পাঠ করান সনাক সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সত্যবান সেন গুপ্ত।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ঝালকাঠি নার্সিং কলেজের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, সনাক ও ইয়েস গ্রুপের সদস্যবৃন্দ এবং টিআইবি কর্মীবৃন্দ।

উল্লেখ্য, ঝালকাঠি সনাকের ইয়ুথ এনগেজমেন্ট এন্ড সাপোর্ট (ইয়েস) গ্রুপের সদস্যরা তথ্য অধিকার বিষয়ক প্রচারণার অংশ হিসেবে ঝালকাঠিতে রাইট টু ইনফরমেশন বা আরটিআই ক্যাম্পেইন পরিচালনা করছে। আরটিআই ক্যাম্পেইন উপলক্ষ্যে গত ১৫ ও ১৬ নভেম্বর শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত ডিজিটাল উদ্ধাবনী মেলায় এবং গত ২৩ নভেম্বর যুব উন্নয়ন অধিদদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে তথ্য অধিকার সংক্রান্ত প্রচারণা কার্যক্রম পরিচালিত হয়। ‘‘তথ্য প্রযুক্তির যুগে জনগণের তথ্য অধিকার নিশ্চিত হোক’’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মেলায় টিআইবি-সনাক এর স্টলে তথ্য অধিকার আইন ও এর বাস্তবায়ন সংক্রান্ত বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে ইয়েস গ্রুপের সদস্যরা। ঝালকাঠির জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তাদের নাম সম্বলিত হালনাগাদ তথ্যপত্রসহ শিক্ষা ক্ষেত্রে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা, স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে ঝালকাঠি সদর হাসপাতাল ও ভূমি ক্ষেত্রে সদর উপজেলা ভূমি অফিসের সেবা প্রদান বিষয়ক তথ্য সম্বলিত তথ্যপত্র বিতরণ করা হয়। এছাড়াও মেলায় সাধারণ জনগণকে হাতে-কলমে তথ্য প্রাপ্তির আবেদন ফরম পূরন করা শিখানোর ক্ষেত্রে সহায়তা করেন টিআইবির ইয়েস গ্রুপের সদস্যরা। উক্ত কার্যক্রমের ভিত্তিতে ডিজিটাল উদ্ধাবনী মেলা-২০২২-এ টিআইবি-সনাক, ঝালকাঠি স্টল দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছে। ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ঝালকাঠি-২ এর মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব আমির হোসেন আমু এর কাছ থেকে ক্রেস্ট গ্রহণ করেন সনাক সভাপতি ডঃ কামরুন্নেসা আজাদ ও ইয়েস গ্রুপের সদস্যরা।