ফ্রিডম বাংলা নিউজ

বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪ |

EN

১৯ বছর আগের হত্যা মামলায় ৩ জনের ফাঁসি, ৬ জনের যাবজ্জীবন

মাদারীপুর প্রতিনিধি | আপডেট: বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২০, ২০২২

১৯ বছর আগের হত্যা মামলায় ৩ জনের ফাঁসি, ৬ জনের যাবজ্জীবন
মাদারীপুরে আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদারকে প্রকাশ্যে গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা মামলার ১৯ বছর পর তিনজন আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া একই ঘটনায় ছয়জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার করে অর্থদণ্ড এবং দোষ প্রমান না হওয়ায় পাঁচজনকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (১৯ অক্টোবর) বিকেলে মাদারীপুর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক লায়লাতুল ফেরদৌস এ মামলার রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- মাজারুল ইসলাম মজনু (৫০), মাছিম শেখ (৪৮) ও জসিম শেখ (৪৫)।

যাবজ্জীবনপ্রাপ্তরা হলেন- হোসেন হাওলাদার (৬০), মনজুর আলী (৫৬), সাইদুর হোসেন হাওলাদার (৫২), সূর্য মাতুব্বর (৫৫), ফয়েজ শেখ (৫৮) ও সুজাল মাতুব্বর (৬০)।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০০৩ সালের ১৯ অক্টোবর মাদারীপুর সদর উপজেলার শিরখাড়া ইউনিয়নের পুরাতন রাজার হাট বাজারে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান হাওলাদারের মেজো ভাই রাজ্জাক হাওলাদারকে প্রকাশ্যে দিবালোকে গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা করে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ লুৎফর খালাসী ও তার সমর্থকরা। এ ঘটনায় ওই বছরের ২০ অক্টোবর নিহতের স্ত্রী সেলিনা খানম বাদী হয়ে ২০ জনকে অভিযুক্ত করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পরে ২০০৫ সালের ৩ নভেম্বর মাদারীপুর সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মিজানুর রহমান ১৯ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। পরে বাদীপক্ষ মামলায় নারাজি দিলে আরও একজনকে তাতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। এরপর আদালত আরও তিনজনকে অন্তর্ভুক্ত করে বিচারকাজ শুরু করেন। বিচারকাজ চলাকালীন সময়ে অভিযুক্ত পাঁচজন বন্দুকযুদ্ধে মারা যান এবং আরও চারজনের স্বাভাবিক মৃত্যু হয়। দীর্ঘ ১৯ বছর বিচারিক কার্যক্রম শেষে আজ রাজ্জাক হত্যা মামলার রায় দেন আদালত।

মামলার বাদী সেলিনা খানম বলেন, আজকের রায়ে আমরা খুশি। এই রায় যেন উচ্চ আদালত বলবৎ রাখে এবং দ্রুত রায়টি কার্যকর করে সেই আশা করি।

মাদারীপুর পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মো. সিদ্দিকুর রহমান সিং বলেন, রাজ্জাক হাওলাদার হত্যা মামলায় দীর্ঘ ১৯ বছর যুক্তিতর্ক শেষ হয়েছে। আদালত এই মামলাতে তিনজনের ফাসি ও ছয়জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন। আমরা রাষ্ট্রপক্ষ এ রায়ে সন্তুষ্ট।