ফ্রিডম বাংলা নিউজ

সোমবার, নভেম্বর ২৮, ২০২২ |

EN

‘মা হতে চেয়েছিলেন অর্পিতা, আপত্তি ছিল না পার্থর’

ওপার বাংলা ডেস্ক | আপডেট: বুধবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২২

‘মা হতে চেয়েছিলেন অর্পিতা, আপত্তি ছিল না পার্থর’
পশ্চিমবঙ্গে আলোচিত নাম অভিনেত্রী অর্পিতা মুখোপাধ্যায় ও রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। অভিনেত্রীর বাসা বিপুল পরিমাণ রুপি উদ্ধারের পর প্রায়ই গণমাধ্যমের শিরোনামে আসতে থাকে তাদের কথা।

এবার আরও সংবাদের শিরোনাম হলেন আলোচিত এই দুই ব্যক্তি। ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) তাদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেওয়ার পর নতুন করে আলোচনায় তারা।

জনা গেছে, সন্তান দত্তক নিয়ে চেয়েছিলেন অর্পিতা মুখোপাধ্যায়! শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলার চার্জশিটে এমনটাই দাবি করেছে ইডি।
আর এতে আপত্তি ছিল না রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। ‘নিকট আত্মীয়’ হিসেবে ‘নো অবজেকশন সার্টিফিকেটও’ দিয়েছিলেন পার্থ। 

সোমবার আদালতে যে চার্জশিট পেশ করেছে ইডি তাতে বলা হয়েছে, দক্ষিণ কলকাতায় অর্পিতার ফ্ল্যাটে হানা দিয়ে নগদের পাশাপাশি প্রচুর নথিও উদ্ধার করা হয়। তার মধ্যেই নাকি ছিল দত্তক সংক্রান্ত নথি। ২২ ও ২৩ জুলাইয়ের মধ্য রাতে উদ্ধার হওয়া নথির মধ্যে এমন একটি চিঠি পাওয়া গেছে বলেই দাবি করেছে ইডি। যেখানে অর্পিতার সন্তান দত্তক নিতে চাওয়ার ইচ্ছা এবং তার জন্য মন্ত্রী হিসেবে পার্থর প্রশংসাপত্র দেওয়ার উল্লেখ রয়েছে। 

এই প্রশংসাপত্র প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসা করা হলে পার্থ কী জবাব দিয়েছিলেন, তাও চার্জশিটে উল্লেখ করেছে ইডি।

জিজ্ঞাসাবাদে পার্থ নাকি বলেন, একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে তার কাছে অনেকেই বিভিন্ন বিষয়ে প্রশংসাপত্র নিতে আসেন। সেই কারণে এমন অনেক প্রশংসাপত্র তার কাছে তৈরি করা থাকে। তবে সেই প্রশংসাপত্রের নিচে যে তারই স্বাক্ষর রয়েছে সে কথা তদন্তকারীদের কাছে স্বীকার করেছেন পার্থ।

চার্জশিটে পার্থ ও অর্পিতার নামে বিপুল সম্পত্তি থাকার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় পার্থ ও অর্পিতার গ্রেফতারির ৫৮ দিনের মাথায় আদালতে চার্জশিট পেশ করেছে ইডি। 

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া, ইন্ডিয়া টুডে