ফ্রিডম বাংলা নিউজ

মঙ্গলবার, জুলাই ২৩, ২০২৪ |

EN

‌‘পদ্মা সেতু শেখ হাসিনার হার না মানা মানসিকতার অনন্য প্রতীক’

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: শুক্রবার, জুলাই ৫, ২০২৪

‌‘পদ্মা সেতু শেখ হাসিনার হার না মানা মানসিকতার অনন্য প্রতীক’
‘পদ্মা সেতু’ বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হার না মানা মানসিকতা, কমিটমেন্ট আর নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাসের অনন্য প্রতীক বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।   

শুক্রবার বিকালে ‘পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতু’র প্রকল্পের সমাপনী উপলক্ষ্যে সুধী সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

বিশ্বব্যাংকসহ চারটি বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানের ঋণে ২০১১ সালের জানুয়ারিতে পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্প চূড়ান্ত করে আওয়ামী লীগ সরকার। কিন্তু দুর্নীতির মিথ্যা অভিযোগে প্রকল্প থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয় সংস্থাগুলো। বিষয়টি আন্তর্জাতিক আদালতে প্রমাণও হয় যে, এই প্রকল্পে কোনো দুর্নীতি হয়নি। এরপর বিশ্বব্যাংক অর্থায়নে ফিরে আসার আগ্রহ দেখালেও বঙ্গবন্ধুকন্যা সিদ্ধান্ত নেন নিজেদের টাকায় পদ্মা সেতু করবেন। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২০১৪ সালের নভেম্বরের শেষের দিকে সেতুর কাজ শুরু হয়।বহু চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে ২০২২ সালের ২৫ জুন পদ্মা সেতু দিয়ে সড়কপথে বাংলাদেশে যোগাযোগের নতুন অধ্যায় শুরু হয়। এরপর ২০২৩ সালে চালু করা হয় রেলপথ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সর্বশ্রেষ্ঠ অর্জন হলো নিজের টাকায় পদ্মা সেতু। এই সাহস তিনি কোথা থেকে পেলেন? বঙ্গবন্ধুর মেয়ে বলেই পেরেছেন। বিশ্বব্যাংক অপবাদ দিয়ে সরে গেল ২০১২ সালের জুলাই মাসে। বাংলাদেশের জাতীয় সংসদে দাঁড়িয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা ঘোষণা দিলেন, আমি আমাদের টাকায় পদ্মা সেতু করব। আমার আজও মনে পড়ে।

এই ঘোষণার পরে খোদ সরকার এবং দলের অনেকেই বিশ্বাস করতে পারেননি নিজের অর্থায়নে সম্ভব- সেই কথা উল্লেখ করে সেতুমন্ত্রী বলেন, নেত্রী যখন ঘোষণা দিলেন এটা নিয়ে শোরগোল।...পাগল নাকি। বিশ্বব্যাংক যদি পদ্মা সেতু না করে, আমাদের কি এমন টাকা আছে যে, আমরা করতে পারব? নেত্রী আপনার সহকর্মীরাও সমালোচনায় মুখর! আমাকে উদ্দেশ্য করে অনেকেই কত কথাই না বলেছেন। আজ আমরা পদ্মা সেতুর সমাপনী অনুষ্ঠান করছি।