ফ্রিডম বাংলা নিউজ

মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ৭, ২০২৩ |

EN

মোবাইল ফোন ব্যবহারে পুরুষদের পেছনে ফেলেছেন নারীরা

ফ্রিডমবাংলা রিপোর্ট | আপডেট: শনিবার, জানুয়ারী ১৪, ২০২৩

মোবাইল ফোন ব্যবহারে পুরুষদের পেছনে ফেলেছেন নারীরা

প্রতীকী ছবি

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) সর্বশেষ জরিপ অনুযায়ী, মোবাইল ফোন ব্যবহারে দেশের নারীরা পুরুষদেরকে শূন্য দশমিক ১ শতাংশ পয়েন্ট পেছনে ফেলেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ৩ মাসে পুরুষ ও নারীর মোবাইল ফোন ব্যবহারের অনুপাত যথাক্রমে ৮৯ দশমিক ৯ শতাংশ ও ৯০ শতাংশ।

বিবিএস সম্প্রতি এ বিষয়ে প্রাথমিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

এ ছাড়া, দিনে অন্তত একবার ইন্টারনেট ব্যবহারের হিসাবেও পুরুষদের পেছনে ফেলেছেন নারীরা।

মোট জনসংখ্যার ৬৮ দশমিক ৯ শতাংশ নারী ও ৬৭ দশমিক ৭ শতাংশ পুরুষ দিনে অন্তত একবার ইন্টারনেট ব্যবহার করেন।

তবে, সপ্তাহে অন্তত একবার ইন্টারনেট ব্যবহারের হিসাবে নারীদের পেছনে ফেলেছেন পুরুষরা। ২৫ দশমিক ৫ শতাংশ পুরুষ ও ২৪ দশমিক ১ শতাংশ নারী সপ্তাহে অন্তত একবার ইন্টারনেট ব্যবহার করেন।

সমীক্ষায় বলা হয়েছে, মোট জনসংখ্যার ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর হার ২০১৩ সালের ৬ দশমিক ৭ শতাংশ থেকে ২০২২ সালে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৮ দশমিক ৯ শতাংশে।

জরিপে আরও দেখা গেছে, কম্পিউটার ব্যবহারকারীর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি চট্টগ্রামে ১৫ শতাংশ এবং সবচেয়ে কম বরিশালে ৪ শতাংশ।

এতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের জনসংখ্যার প্রায় ৫২ দশমিক ২ শতাংশ মানুষের হাতে স্মার্টফোন রয়েছে।

বিভাগ অনুযায়ী, বাসায় ইন্টারনেট ব্যবহারের হার ঢাকায় সর্বোচ্চ ৫৪ দশমিক ২ শতাংশ এবং রাজশাহীতে সর্বনিম্ন ১৯ দশমিক ৭ শতাংশ।

মোবাইল ব্যবহারের হারও ২০১৩ সালের ৮১ দশমিক ৭ শতাংশ থেকে বেড়ে ২০২২ সালে হয়েছে ৮৯ দশমিক ৯ শতাংশ।

এই জরিপ প্রকল্পটি গ্রহণ করা হয় ২০২১ সালে এবং এর জন্য ব্যয় হয়েছে ৪ কোটি ৯৯ লাখ টাকা।