ফ্রিডম বাংলা নিউজ

রবিবার, নভেম্বর ২৭, ২০২২ |

EN

মালয়েশিয়ায় ১৯ হাজারের বেশি অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার

বিশ্ব বাংলা ডেস্ক | আপডেট: সোমবার, নভেম্বর ৭, ২০২২

মালয়েশিয়ায় ১৯ হাজারের বেশি অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার

ফাইল ছবি

মালয়েশিয়ায় চলতি বছরে ১৯ হাজারের বেশি অবৈধ অভিবাসীকে গ্রেপ্তার করেছে অভিবাসন বিভাগ। দেশটির অভিবাসন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে ৩ নভেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ১৯ হাজার ৯৪৬ জন অভিবাসীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে এই বছরের অভিযানে বেশির ভাগ অভিবাসীকে আবাসিক বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শুক্রবার (৪ নভেম্বর) সিনার হারিয়ানকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে ইমিগ্রেশন পরিচালক খায়রুল জায়মি দাউদ এ তথ্য জানান।

ইমিগ্রেশনের মহাপরিচালক বলেছেন, ২ হাজার ৭৪৮টি আবাসিক বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে। যা অন্যান্য স্থানের তুলনায় সর্বোচ্চ। ৩ নভেম্বর পর্যন্ত ৪ হাজার ৭৪৫ জন অভিবাসীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তার মতে, কন্ডমিনিয়াম এবং নির্মাণ সাইটে ১ হাজার ৩০টি অভিযান চালিয়ে ৪ হাজার ৬৭৯ অভিবাসীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এছাড়া অবৈধ অভিবাসীদের গ্রেপ্তারে ম্যাসেজ হোম, জুয়া এবং বিনোদন কেন্দ্র, ব্যবসার জায়গা, বাজার, গাড়ি ধোয়া, নিরাপত্তা প্রহরীর স্থান থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, গ্রেপ্তার হওয়া অবৈধ অভিবাসীদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ইন্দোনেশিয়ার (৮ হাজার ৬৭৯ জন)। এর পরে মিয়ানমার (২ হাজার ৯৩৯ জন), বাংলাদেশ (২ হাজার ৭৬৭ জন), থাইল্যান্ড (১ হাজার ৩৯৬ জন) এবং ভারত (১ হাজার ২৬০ জন)। বাকিরা হলো ফিলিপাইন, পাকিস্তান, নেপাল, ভিয়েতনাম এবং চীনসহ অন্যান্য দেশের।

এদিকে ২৭২ অভিবাসন নিয়োগকর্তাকে আটক করা হয়েছে, যারা অবৈধভাবে অভিবাসীকে নিয়োগ দিয়েছিল। ইমিগ্রেশন অ্যাক্ট ১৯৫৯/৬৩ এবং ইমিগ্রেশন রেগুলেশন ১৯৬৩-এর অধীনে এসব অভিযান পরিচালিত হয়েছে।

ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক খায়রুল জায়মি দাউদ জানিয়েছেন, কোনো অবৈধ অভিবাসীকে রক্ষা করা বা সহানুভূতি বোধ করা জনগণের উচিত নয়। যারা এসব করবে তাদের অভিবাসন আইন ১৯৫৯/৬৩ এর ধারা ৫৫ই এর অধীনে বিচার করা হবে এবং দোষী প্রমাণিত হলে ৫ হাজার রিঙ্গিত জরিমানা, কারাদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করা হবে।