ফ্রিডম বাংলা নিউজ

বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪ |

EN

লক্ষ্মীপুরে পানি স্বল্পতায় অসুস্থ ১১ ছাত্রী

জিহাদ হোসেন রাহাত, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি | আপডেট: বুধবার, জুন ৫, ২০২৪

লক্ষ্মীপুরে পানি স্বল্পতায় অসুস্থ ১১ ছাত্রী
লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে স্কুল ছুটির লগ্নে অতিরিক্ত গরমে একটি বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে ও ছুটির পর বাসায় ফেরার পর প্রায় ১১ জন শিক্ষার্থী তাপ নিঃশেষনের কারণে অসুস্থ হয়ে পড়ে। প্রথমে ৫জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়লে তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে তাদেরকে স্থানীয় প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। অন্যরা বাড়িতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। এরমধ্যে প্রায় ৪ জনকে হাসপাতাল ভর্তি করা হয়। অসুস্থ অবস্থায় রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয় ঝর্ণা আক্তার, মোহসেনা আক্তার,নুহা আক্তার, ইভা, সামিয়া, রাশিদা সুলতানা, নুসরাত জাহান, রিয়া আক্তার, হাসমাত আক্তার, সিমা আক্তার ও ফারিয়া সুলতানকে। তারা সবাই ১৩-১৬ বছর বয়সী। রায়পুর জনসেবা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকা অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী হাসমাত আক্তারের (১৪) মা রাশিদা বেগম বলেন, আমার মেয়ে স্কুল ছুটির পর বাড়িতে আসার সময় অসুস্থ হয়ে পড়ে। ডাক্তার বলেছেন পানি স্বল্পতার শিকার সে।

রায়পুর মেঘনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী ঝর্ণা আক্তার (১৫) বলেন, অস্বস্তি লেগেছিলো। পরে কিছু মনে নেই। 

বুধবার (৫ জুন) রাত ৯ টার দিকে রায়পুর জনকল্যাণ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. সেলিম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। অসুস্থ শিক্ষার্থীরা একই বিদ্যালয়ের বিভিন্ন শ্রেণিতে অধ্যয়নরত। পাঠদান চলাকালীন রায়পুর উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের জনকল্যাণ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে দুপুর ২ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত অতিরিক্ত গরমে শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হয়ে পড়ে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. সেলিম বলেন, অতিরিক্ত গরম পড়ায় বিদ্যালয়ে ৫ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাৎক্ষণিক তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্যরা বাড়িতে গিয়ে অসুস্থ হয়। এরমধ্যে ৪ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ৯জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছে। ২ জন হাসাপাতালে আছে। ঠান্ডা পরিবেশে থাকলে তারাও দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। 

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি খোরশেদ আলম দেওয়ান বলেন, গরমে শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হয়ে পড়লে শিক্ষকরাই তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করে। শিক্ষকরা সার্বক্ষণিক তাদের পাশে ছিল। এখন সবাই সুস্থ আছে। 

রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত চিকিৎসক পীযুষ চন্দ্র দাস বলেন, অতিরিক্ত গরমে শরীরে পানি শূন্যতা দেখা দেয়। এ পানিশূন্যতার কারণেই শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হয়ে পড়েছে। ঠান্ডা পরিবেশে থাকলেই দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে।