ফ্রিডম বাংলা নিউজ

মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ২৭, ২০২৪ |

EN

রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়াবেন ইমরান খান!

বিশ্ব বাংলা ডেস্ক | আপডেট: শুক্রবার, মে ২৬, ২০২৩

রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়াবেন ইমরান খান!
পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও পাকিস্তান তেহরিক ই ইনসাফের চেয়ারম্যান ইমরান খান বলেছেন, দেশ ও গণতন্ত্রের স্বার্থে তিনি সেনাবাহিনীর সঙ্গে আলোচনার জন্য একটি কমিটি গঠন করে দিতে প্রস্তুত। তিনি বলেন, ‘আমাকে কিছু আভাস দিন, আমি এক দিনের মধ্যে কমিটি ঘোষণা করে দেব।’

গত বুধবার ইমরান খান লাহোরে তাঁর জামান পার্কের বাসভবন থেকে ভার্চ্যুয়ালি বক্তব্য দেন। এ সময় তিনি তাঁর আগের অবস্থান পুনর্ব্যক্ত করে বলেন, তাঁর গঠন করা কমিটিকে যদি সেনাবাহিনী বোঝাতে পারে যে রাজনৈতিক দৃশ্যপট থেকে তিনি সরে গেলে দেশের কীভাবে ভালো হবে, তবে তিনি রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়াবেন।

পিটিআই চেয়ারম্যান প্রশ্ন করেন, আগামী অক্টোবরে সারা দেশে একযোগে নির্বাচন হলে তা কীভাবে দেশের স্বার্থ নিশ্চিত করবে? তিনি অভিযোগ করেন, সময়ক্ষেপণ করে তাঁর দল পিটিআইকে নিশ্চিহ্ন করা হচ্ছে। তিনি বলেন, দেশ যখন নানা সমস্যায় ডুবছে, তখন মানুষ কেন নির্বাচনের জন্য অক্টোবর পর্যন্ত অপেক্ষা করবে? শতাধিক মামলা, গ্রেপ্তার ও পুনরায় গ্রেপ্তার হওয়ার আশঙ্কার মধ্যে দুই ডজন নেতার দলত্যাগে বিপদ বাড়ল পিটিআই প্রধান ইমরান খানের  

ইমরান তাঁর বক্তব্যে বলেন, সেনাবাহিনী যদি তাঁর কমিটিকে বোঝাতে ব্যর্থ হন, তবে তিনি শেষ বল পর্যন্ত ব্যাট করে যাবেন। তিনি দেশের সাবেক সেনাপ্রধানকে সতর্ক করে বলেন, ‘রাজনীতি থেকে আমাকে সরাতে দেশ ধ্বংসের হাতিয়ার হয়ে দাঁড়াবেন না।’

পিটিআই চেয়ারম্যান সুপ্রিম কোর্টের বিচারকদের মতপার্থক্য ভুলে দেশের গণতন্ত্র ও জনগণের অধিকার রক্ষায় একতাবদ্ধ থাকতে আহ্বান জানান।

ইমরান খান অভিযোগ করে বলেন, তাঁর দলের নেতাদের পদত্যাগে বাধ্য করা হচ্ছে। নেতৃত্ব ও দল ছাড়ার জন্য কর্মী–সমর্থকদের নানা রকম ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। পিটিআই নেতা ও দলের মহাসচিব আসাদ উমর গত বুধবার তাঁর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি এই পদে ১৭ মাস দায়িত্ব পালন করেছেন। তবে তিনি দল ছাড়ার কথা বলেননি।