ফ্রিডম বাংলা নিউজ

বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪ |

EN

শিবচরে হাজী শরীয়ত উল্লাহ (রহ:)-এর মাহফিলে মুসল্লির ঢল

মাদারীপুর প্রতিনিধি | আপডেট: বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ১৬, ২০২৩

শিবচরে হাজী শরীয়ত উল্লাহ (রহ:)-এর মাহফিলে মুসল্লির ঢল
বৃটিশবিরোধী আন্দোলনের নেতা, শাইখুল ইসলাম হযরত হাজী শরীয়তুল্লাহর স্মৃতি বিজড়িত স্থান মাদারীপুরের শিবচরের বাহাদুরপুর ময়দানে ৭৮তম বার্ষিক মাহফিল চলছে। হাজার হাজার মুসল্লির সমাগমে পরিপূর্ণ মাহফিল ময়দান। দেশবরেণ্য ও সুনামধন্য আলেমগণের বয়ান পেশের মাধ্যমে ইসলাম ও দ্বীনি শিক্ষা গ্রহণ করবেন মুসল্লিগণ। তিন দিন ব্যাপী ওয়াজ মাহফিলের প্রথম দিনেই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা মুসল্লীদের ঢল নামে। তবে প্রশাসনের কঠোর বেষ্ঠনী থাকায় সুশৃংখল পরিবেশ বজায় রয়েছে।

জানা যায়, বৃটিশবিরোধী আন্দোলনের অগ্রদূত, শাইখুল ইসলাম হযরত হাজী শরীয়তুল্লাহ (রহ.)-এর স্মৃতি বিজড়িত আস্তানা শিবচরের বাহাদুরপুর ময়দানে ৭৮তম বার্ষিক মাহফিল গকাল বুধবার থেকে শুরু হয়। মাহফিল উপলক্ষে মাহফিল ময়দানে মুসল্লিদের ভিড় মাঠ পেরিয়ে আশেপাশের ঘরবাড়ি, রাস্তাঘাটে ছড়িয়ে পড়ে।

৩ দিনব্যাপী বার্ষিক মাহফিলের গতকাল ছিল প্রথম দিন। আগামী শুক্রবার রাতে হাজী শরিয়তুল্লাহ'র ৭ম পুরুষ, পীরে কামেল, আলহাজ্ব হযরত মাওলানা আব্দুল্লাহ মুহাম্মাদ হাসানের নেতৃত্বে আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে ঐতিহাসিক এই মাহফিল।

মাহফিলে দেশ-বিদেশের  হাজার হাজার মুসল্লি অংশ নেন। ৩ দিনব্যাপী এই মাহফিলে দেশবরেণ্য উলামায়ে কেরাম ও পীর মাশায়েখবৃন্দ মূল্যবান ওয়াজ নসিহত পেশ করবেন। ইসলাম ও দ্বীনের কথা শুনতে হাজার হাজার মুসল্লি অংশ নেন এই মাহফিলে। ৩ দিনব্যাপী ঐতিহাসিক ৭৮তম এই বার্ষিক মাহফিলটি পরিচালনা করেন হাজী শরিয়তুল্লাহ (রহ)-এর সপ্তম পুরুষ, বাংলাদেশ ফরায়েজি আন্দোলনের সভাপতি আলহাজ হযরত মাও. আব্দুল্লাহ মোহাম্মাদ হাসান পীর সাহেব বাহাদুরপুর।

সুশৃংখল পরিবেশ বজায় রাখতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। আগামীকাল ১৭ই ফেব্রুয়ারি শুক্রবার অনুষ্ঠিত হবে দেশের অন্যতম বৃহত্তর জুমার জামাত।

হাজী শরিয়তুল্লাহ'র ৭ম পুরুষ, পীরে কামেল, আলহাজ হযরত মাওলানা আব্দুল্লাহ মুহাম্মাদ হাসান বলেন, হাজী শরিয়তুল্লাহ (রহ.)-এর আস্তানায় ৩ দিনব্যাপী মাহফিল উপলক্ষে হাজার হাজার মুসল্লির সমাগম ঘটে। এখানে ইসলাম ও দ্বীনের আলোচনার মাধ্যমে মুসল্লিদের শিক্ষা প্রদান করা হয়। এই মাহফিল ময়দানে দেশবরেণ্য ও সুনামধন্য আলেমগণ তাদের মূল্যবান বয়ান পেশ করেন।